জিআইসি হাউজিং ফিন্যান্স লিমিটেড,(জিআইসিএইচএফএল)গ্রাহকদের সঙ্গে ব্যবসায়িক লেনদেনের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা বজায় রাখার জন্য এই বিধি গ্রহণ করেছে।

  • উদ্দেশ্যসমূহ :
    1. গ্রাহকদের সঙ্গে লেনদেনের জন্য ন্যূনতম মানদণ্ড নির্ধারণ করার মাধ্যমে ভালো ও ন্যায্য কর্মনীতি প্রবর্তন করা;
    2. গ্রাহকরা যাতে আরও ভালো ভাবে বুঝতে পারেন যে যুক্তিসঙ্গত ভাবে তারা কেমন পরিষেবার আশা রাখতে পারেন তার জন্য স্বচ্ছতা বৃদ্ধি করা;
    3. কর্ম পরিচালনার মানকে আরও উন্নত করার জন্য প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বাজারি শক্তিগুলির পৃষ্ঠপোষকতা করা;
    4. গ্রাহক এবং জিআইসিএইচএফএল এর মধ্যে ন্যায্য এবং আন্তরিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে সহায়তা করা; এবং
      আবাসিক অর্থ সংস্থান ব্যবস্থায় আস্থা বৃদ্ধি করা।
    • বিধির প্রয়োগ :এই বিধি জিআইসিএইচএফএল-এর সকল কর্মী এবং বাণিজ্য সূত্রে অন্যান্য যে সকল অনুমোদিত ব্যক্তি এর প্রতিনিধিত্ব করবেন তাদের জন্য প্রযুক্ত হবে।
  • প্রতিশ্রুতি সমূহ :
    সততা ও স্বচ্ছতার নৈতিক নীতি অবলম্বন করে, জিআইসিএইচএফএল সমস্ত লেনদেনের ক্ষেত্রে ন্যায্য ও যুক্তিসঙ্গত আচরণ করার জন্য এই বিধি পালন করবে, যাতে আবাসিক অর্থ সংস্থান শিল্পে প্রচলিত প্রমিত কর্ম রীতিগুলি অনুসরণ করতে পারে। গ্রাহকরা যাতে নিম্নলিখিতগুলি স্পষ্ট ভাবে বুঝতে পারেন সেই জন্য জিআইসিএইচএফএল কোন প্রকার অস্পষ্টতা ছাড়া বিশদ তথ্য প্রদান করবে:

    1. পণ্য ও পরিষেবা সমূহ এবং সেই সঙ্গে সেগুলির সুদ ও পরিষেবা মূল্য সহ শর্তাবলী।
    2. গ্রাহকদের জন্য উপলভ্য সুবিধা সমূহ।

    যদি কোন ত্রুটি ঘটে তবে জিআইসিএইচএফএল দ্রুততা এবং সহমর্মিতার সঙ্গে সেটি সংশোধনের ব্যবস্থা করবে, এবং গ্রাহকদের সকল অভিযোগের ব্যবস্থাপনা এই বিধির উদ্দেশ্য অনুসারে করবে।

    জিআইসিএইচএফএল গ্রাহকদের সমস্ত তথ্য ব্যক্তিগত ও গোপনীয় রূপে ব্যবহার করবে এবং অন্য কোন তৃতীয় ব্যক্তির কাছে এই তথ্য উদ্ঘাটিত করবে না যদি না আইন অথবা নিয়ন্ত্রক ও ক্রেডিট এজেন্সি সহ কোন সরকারী কর্তৃপক্ষ দ্বারা আবশ্যিক হয় অথবা গ্রাহক দ্বারা তথ্য প্রদান অনুমোদিত হয়।

    অনুরোধ করলে জিআইসিএইচএফএল এই বিধির প্রতিলিপি বিদ্যমান গ্রাহক এবং ব্যবসায়িক লেনদেন শুরু করার পূর্বে নতুন গ্রাহকদের প্রদান করবে।

    জিআইসিএইচএফএল বয়স, জাতি, জাত, লিঙ্গ, বৈবাহিক অবস্থা, ধর্ম বা অক্ষমতার কারণে কোন গ্রাহকের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করবে না। কিন্তু ঋণ সংক্রান্ত পণ্যে কোন সীমাবদ্ধতার উল্লেখ থাকলে তার প্রয়োগ বলবত থাকবে।

  • তথ্য প্রকাশ এবং স্বচ্ছতা :

    জিআইসিএইচএফএল নিম্নলিখিত পদ্ধতিতে সুদের হার, সাধারণ ফি এবং মূল্য সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করবে:
    a.    শাখাগুলিতে নোটিস প্রদানের মাধ্যমে;
    b.    মূল্য তালিকা প্রকাশ করার মাধ্যমে।
  • বিজ্ঞাপন, বিপণন এবং বিক্রয়:জিআইসিএইচএফএল নিশ্চিত করবে যাতে সমস্ত বিজ্ঞাপন এবং প্রচারের বিষয়বস্তু সহজবোধ্য হয় এবং বিভ্রান্তিকর না হয়। যখন কোম্পানির বিক্রয় সহযোগী/প্রতিনিধিরা ব্যক্তিগত ভাবে গ্রাহকদের কাছে পণ্য বিক্রয় করতে যাবে তখন তাদের ক্ষেত্রেও ন্যায্য আচরণ বিধি তাদের শনাক্তকরণের প্রসর পর্যন্ত প্রযোজ্য হবে।
  • ক্রেডিট রেফারেন্স এজেন্সি  :জিআইসিএইচএফএল ক্রেডিট রেফারেন্স এজেন্সিকে গ্রাহক সম্পর্কে নিম্নলিখিত তথ্য প্রদান করবে:-
    a. অ্যাকাউন্ট খোলা
    b. গ্রাহকের পরিশোধ বাকি পড়লে
    c. বকেয়া আদায়ের জন্য গ্রাহকের বিরুদ্ধে আইনি কার্যকলাপ শুরু করা হলে।
    d. গ্রাহকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থাগ্রহণের মাধ্যমে বকেয়া আদায় করা হলেজিআইসিএইচএফএল ক্রেডিট রেফারেন্স এজেন্সিকে গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে অন্যান্য তথ্য প্রদান করতে পারে যদি সেটা আইনত আবশ্যিক হয় বা গ্রাহক সেটা করার অনুমতি প্রদান করে।
  • বকেয়া আদায়:যখনি ঋণ দেওয়া হবে, জিআইসিএইচএফএল ঋণ পরিশোধের পদ্ধতি যেমন পরিমাণ, মেয়াদ, পরিশোধের পর্যাবৃত্তি গ্রাহকের কাছে ব্যাখ্যা করবে। কিন্তু গ্রাহক যদি পরিশোধের সময়সূচী মেনে না চলেন, তাহলে বকেয়া আদায়ের জন্য সেই স্থানের আইন অনুযায়ী নির্দিষ্ট পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে। গ্রাহককে নোটিস পাঠানোর মাধ্যমে মনে করিয়ে দেওয়া, ব্যক্তিগত ভাবে গ্রাহকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করা এবং / অথবা যদি থাকে তাহলে জমানত বাজেয়াপ্ত করা এই পদ্ধতির অন্তর্গত। বকেয়া আদায় অথবা/এবং জমানত বাজেয়াপ্ত করার সময় জিআইসিএইচএফএল-এর কর্মী বা কোম্পানির প্রতিনিধিত্ব করার জন্য অনুমোদিত অন্য যে কোন ব্যক্তি নিজের পরিচয় প্রদান করবে এবং জিআইসিএইচএফএল দ্বারা প্রদত্ত অধিকার পত্র প্রদর্শন করবে, এবং অনুরোধ করা হলে জিআইসিএইচএফএল দ্বারা অথবা জিআইসিএইচএফএল এর অধীনে অধিকারপ্রাপ্ত স্বত্বা দ্বারা প্রদত্ত তার পরিচয়পত্র প্রদর্শন করবে। কোম্পানি গ্রাহককে বকেয়া সম্পর্কে সকল প্রকার তথ্য প্রদান করবে।

    বকেয়া সংক্রান্ত বিরোধ ও মতানৈক্য উভয় পক্ষের কাছে গ্রহণযোগ্য এবং সুশৃঙ্খল পদ্ধতিতে মীমাংসা করার জন্য সমস্ত প্রকার সহায়তা প্রদান করা হবে।

    বকেয়া আদায়ের জন্য গ্রাহকের গৃহে সাক্ষাৎকালে শালীনতা ও শিষ্টতা রক্ষা করা হবে।

  • আপনার গ্রাহককে জানুন(কেওয়াইসি) নির্দেশাবলী:জিআইসিএইচএফএল তার গ্রাহকদের কেওয়াইসি নির্দেশাবলীর প্রয়োজনীয়তা বুঝিয়ে বলবে এবং ঋণ অনুমোদন, অ্যাকাউন্ট খোলা এবং কাজকর্ম করার পূর্বে গ্রাহকের পরিচয় প্রতিষ্ঠা করার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র সম্পর্কে জানাবে। জিআইসিএইচএফএল শুধুমাত্র কোম্পানির কেওয়াইসি, অর্থশোধন রোধী এবং এই প্রকার অন্য কোন আইনগত প্রয়োজনীয়তা পূরণ করার জন্য এই সকল তথ্য গ্রহণ করবে। যদি অন্য কোন অতিরিক্ত তথ্য চাওয়া হয় তাহলে সেটি পৃথক ভাবে চাওয়া হবে এবং সেই অতিরিক্ত তথ্য চাওয়ার কারণ নির্দিষ্ট ভাবে জানানো হবে।
  • আমানতি অ্যাকাউন্ট:জিআইসিএইচএফএল তার বিভিন্ন আমানতি প্রকল্প সম্পর্কে সকল তথ্য যেমন সুদের হার, সুদের প্রয়োগ পদ্ধতি, আমানতের শর্তাবলী, অকালীন প্রত্যাহার, পুনর্নবীকরণ, আমানতের বিপরীতে ঋণ, নমিনি নির্বাচনের সুবিধা ইত্যাদি জানাবে।
  • ঋণ :জিআইসিএইচএফএল দ্বারা ঋণ পরিশোধের ক্ষমতার মূল্যায়ন :যদি জিআইসিএইচএফএল গ্রাহককে ঋণ দিতে না পারে তাহলে তাকে লিখিত ভাবে প্রত্যাখ্যানের কারণ(গুলি) জানাতে হবে। যদি গ্রাহক তার দায়ের জন্য জিআইসিএইচএফএল-কে অন্য কোন ব্যক্তির গ্যরান্টি বা জমানত গ্রহণ করতে বলেন তাহলে কোম্পানি গ্রাহকের অর্থকরী অবস্থা সম্পর্কে গোপনীয় তথ্য যে ব্যক্তি গ্যারান্টি বা জমানত দিচ্ছেন তাকে বা তার আইনি পরামর্শদাতাকে জানাতে পারে।
  • ঋণের জন্য আবেদন এবং তার প্রক্রিয়াকরণ:
    1. কোন ঋণ পণ্য সরবরাহ করার সময় জিআইসিএইচএফএল প্রযোজ্য সুদের হার, এবং যদি প্রক্রিয়াকরণের জন্য কোন ফি/মূল্য প্রদেয় হয়, প্রাক-পরিশোধের বিকল্প সমূহ ও তার জন্য যদি কোন মূল্য প্রদেয় হয় এবং অন্য সমস্ত বিষয় যা ঋণ গ্রহীতার স্বার্থকে প্রভাবিত করতে পারে সেই সম্পর্কে তথ্য প্রদান করবে।
    2. ঋণের আবেদন প্রক্রিয়াকরণের জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য আবেদনের সময় জিআইসিএইচএফএল-এর কাছে জমা করতে হবে। যদি কোন অতিরিক্ত তথ্যের প্রয়োজন হয় তাহলে জিআইসিএইচএফএল গ্রাহকের সঙ্গে যোগাযোগ করবে।
    3. জিআইসিএইচএফএল গ্রাহককে ঋণের অনুমোদন এবং সেটির শর্তাবলী সম্পর্কে সূচিত করবে।
    4. ঋণ সমাপ্ত হলে গ্রাহকের বিনামূল্যে ঋণের প্রমাণীকৃত নথিপত্রের একটি সেট পাওয়ার অধিকার থাকবে।
    5. জিআইসিএইচএফএল ঋণ দানের ক্ষেত্রে লিঙ্গ, জাত এবং ধর্মের ওপর ভিত্তি করে কোন প্রকার বৈষম্যমূলক আচরণ করবে না। কিন্তু এটি জিআইসিএইচএফএল-কে সমাজের বিভিন্ন গোষ্ঠীর জন্য বিশেষ প্রকল্প গঠন বা অংশগ্রহণে নিবারিত করে না।
    6. জিআইসিএইচএফএল নিজের বিবেচনা অনুযায়ী কোন ঋণ গ্রহীতা বা ব্যাংক/আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ অ্যাকাউন্টের হস্তান্তরের অনুরোধ তার স্বাভাবিক কার্যপদ্ধতি অনুযায়ী প্রক্রিয়াকরণ করবে।
    7. জিআইসিএইচএফএল কোন চুক্তির অর্থ প্রদান বা সাধন প্রত্যাহার/ত্বরান্বিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে অথবা অতিরিক্ত জমানত নিতে চাইলে, সে সম্পর্কে গ্রাহককে চুক্তির সঙ্গে সুসংগত নোটিস দেবে।
    8. সমস্ত বকেয়া পরিশোধ করা হলে অথবা ঋণের বকেয়া অর্থের সমমূল্যের সম্পত্তি প্রাপ্ত করলে জিআইসিএইচএফএল সমস্ত জমানত মুক্ত করবে যা জিআইসিএইচএফএল-এর গ্রাহকের কাছে অন্য কোন দাবির জন্য থাকা আইনত অধিকার বা স্বত্ব সাপেক্ষ। যদি এই প্রকার খেসারতের অধিকার প্রয়োগ করা হয় তাহলে গ্রাহককে সেই সম্পর্কে নোটিস দেওয়া হবে যাতে অবশিষ্ট দাবির পূর্ণ বিবরণ এবং দাবির নিষ্পত্তি/পরিশোধ হওয়া পর্যন্ত কোন শর্তের অধীনে কোম্পানি জমানত ধারণ করতে পারে সেই সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য জানানো হবে।
  • গ্যারান্টার:যখন কোন ব্যক্তিকে কোন ঋণের জন্য গ্যারান্টার রূপে গণ্য করা হবে তখন তার স্বীকৃতির অধীনে জিআইসিএইচএফএল তাকে নিম্নলিখিতগুলি জানাবে:
    1. গ্যারান্টির পত্র/দলিল যাতে গ্যারান্টারের দায় সংক্রান্ত শর্ত লিখিত থাকবে।
    2. গ্যারান্টারের যে ঋণ গ্রহীতার জন্য গ্যারান্টি প্রদান করবেন সেই ঋণ গ্রহীতা ঋণ পরিশোধের টাকা বাকি রাখলে সেই সম্পর্কে জিআইসিএইচএফএল গ্যারান্টারকে সূচিত করবে।
  • শাখা বন্ধ করা/স্থানান্তরিত করা:জিআইসিএইচএফএল কোন শাখা অফিস বন্ধ/স্থানান্তরিত করার আগে গ্রাহককে সেই সম্পর্কে নোটিস দেবে
  • অভিযোগ :জিআইসিএইচএফএল আইন, গৃহীত কর্মপন্থা এবং কর্মনীতি অনুযায়ী গ্রাহকের সন্তুষ্টি বিধানের সর্ব প্রকার চেষ্টা করবে। যদি কোন অভিযোগ থাকে তাহলে গ্রাহক তার অ্যাকাউন্ট যেখানে আছে সেই ব্যবসা স্থলের ভারপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে জানাতে পারেন এবং ঐ ভারপ্রাপ্ত ব্যক্তির কাছে থাকা ‘অভিযোগের রেজিস্টার’-এ নিজের অভিযোগ নিবন্ধিত করতে পারেন।

    অভিযোগ নিবন্ধন করা হয়ে গেলে ভবিষ্যতে সেটা উল্লেখ করার জন্য গ্রাহককে একটি অভিযোগ নম্বর ও তারিখ দেওয়া হবে।

    গ্রাহক তার অভিযোগের প্রতিবিধান পাওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট স্থানে লিখতে/যোগাযোগ করতে পারেন। (স্থানের তালিকা জানার জন্য অনুগ্রহ করে ওয়েবসাইটে  www.gichfindia.com )

    যদি কোন উত্তর না পাওয়া যায় বা প্রাপ্ত উত্তর সন্তোষজনক না হয় তাহলে অভিযোগকে উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য নিম্নলিখিতের কাছে জানাতে হবে:

    পত্রের মাধ্যমে :

    ভাইস প্রেসিডেন্ট
    জিআইসি হাউজিং ফিন্যান্স লিমিটেড
    ইউনিভার্সাল ইনসিওরেন্স বিল্ডিং, 3য় তল,
    স্যার পি এম রোড, ফোর্ট,
    মুম্বাই 400 001।

    ইমেলের মাধ্যমে: corporate@gichf.com

  • সাধারণ :জিআইসিএইচএফএল উপরে উল্লিখিত প্রত্যেকটি বিধির প্রকৃত অর্থ পরিবর্তন/ত্যাগ না করে সংশোধন/পরিবর্তন/রূপান্তর করার অধিকার সংরক্ষণ করে এবং এই সম্পর্কে সময় সময় আপডেট প্রদান করবে। গ্রাহকের সুবিধা এবং অবগতির জন্য এইসকল পরিবর্তন/সংশোধন শাখা/কর্পোরেট অফিসের নোটিস বোর্ডে প্রদর্শিত করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*
Website